ঢাকা সোমবার, ২১শে অক্টোবর ২০১৯, ৭ই কার্তিক ১৪২৬


নেত্রীর সিদ্ধান্তকে ভুল প্রমান করতে চায় সিন্ডিকেট!


১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৩:২৪

আপডেট:
১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৩:২৫

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনরার সিদ্ধান্তকে ভুল প্রমানের করতে চায় সিন্ডিকেট বলে মন্তব্য করেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এইচ এম আল আমিন । তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এক পোস্টে এ মন্তব্য করেন। তিনি আরো বলেন, মানুষ ভুল ত্রুটির উর্ধে নয়" কিন্তু বাংলাদেশ ছাত্রলীগ যে লিমিটেড কোম্পানী থেকে মুক্ত হবার পথে চলতেছিল সেটা অনেকের জন্য যন্ত্রণাদায়ক।


শোভন রাব্বানীর মতো দুইজন মানুষ এতো বড় শক্তির বিরুদ্ধে পথচলা সত্যিই কঠিন।
শত কোটি টাকার বিজনেস সিন্ডিকেট ভেঙ্গেছে শোভন রাব্বানী।
রাতারাতি যাকে খুশি তাকে নেতা বানানোর প্রক্রিয়া বন্ধ হয়েছে" ছাত্রদল শিবিরের অনুপ্রবেশ কমেছে"
লিমিটেড কোম্পানির ইজারাদারদের বাসায় বাসায় ভীর কমে সে ভীর জমেছে শোভন রাব্বানীর বাসায়।
কমিটি বানিজ্য, বন্ধ হয়ে গেছে" তাই কর্মীরা সারাক্ষণ নেতার পিছনেই থাকতে চান যার জন্য প্রটোকলের পরিমাণ বেড়েছে আগের চেয়ে দ্বিগুণ।
কর্মীদের একমাত্র ভরসায় জায়গা শোভন রাব্বানী।
এক সিন্ডিকেট ভেঙ্গে, আরেক সিন্ডিকেট করার চিন্তায় যারা শোভন রাব্বানী কে পুতুল বানাতে চান তাদের কেও তেমন পাত্তা দিচ্ছেন না শোভন রাব্বানী।
শোভন রাব্বানী কি এমন ক্ষতি করলো যারজন্য একটি মহল নেত্রীর সিদ্ধান্ত কে ভুল প্রমানের জন্য মিডিয়াকে কাজে লাগিয়ে উড়ন্ত নিউজ করাচ্ছেন?
যারা ঘোলা পানিতে মাছ শীকারের চেষ্টা করছেন তারা শীঘ্রই ভুল প্রমানিত হবেন।
আমার মতে শোভন রাব্বানী কে একটু বাস্তববাদী হতে হবে, তারা বেশি আবেগী" তাই যা ঘটে তার চেয়ে হাজারগুণ বেশি রটে।
ছাত্রলীগ কে দুর্বল করলে কারো জন্যই ভবিষ্যৎ ভালো হবেনা।
জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু
উল্লেখ, গত বছর ১১ ও ১২ মে ছাত্রলীগের সম্মেলন হওয়ার পর ৩১ জুলাই আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মতিতে রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে সভাপতি ও গোলাম রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়।

সেদিন রাতে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাদের নাম ঘোষণা করেন। তারপর দ্রুত সময়ের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার কথা থাকলেও প্রায় ১০ মাস পর ১৩ মে ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।